সাম্প্রতিক

আগুনে জিহ্বা রেখে সত্য-মিথ্যার পরীক্ষা!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : এখনো বিশ্ব জুড়ে বিভিন্ন জাতি-গোত্রের মাঝে নানা অদ্ভুত প্রথা প্রচলিত রয়েছে। যা কখনও কখনও অবিশ্বাস্য মনে হয়। আর এই প্রথার কারণে অনেক সময় অনেকেই জীবন হারান। তবুও পুরনো দিনের সেই সব প্রথা পালন বন্ধ হয়নি অনেক গোত্রে। মিশরে তেমনি কিছু গোত্র রয়েছে যেখানে আপনি মিথ্যা বলছেন কিনা তা প্রমাণ করতে লোহার আগুনে জিহ্বা রেখে আপনাকে অগ্নি পরীক্ষা দিতে হয়।

মিসরের বেদুইন সমাজে অসামাজিক কাজ অথবা সত্য-মিথ্যা যাচাইয়ের জন্য অভিযুক্তের এই পরীক্ষা নেওয়া হয় বলে জানা গেছে।

সেই নিয়ম অনুযায়ী লোহার তৈরি হাতা, চামচ বা অনুরূপ কোনো পাত্র আগুনে গরম করা হয়। টকটকে লাল করার পর সেই গরম পাত্র তিনবার ছোঁয়ানো হয় অভিযুক্তের জিহ্বা। যদি জিহ্বা পুড়ে যায় তাহলে অভিযুক্তকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়। অর্থাৎ অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ সত্যি। অন্যথায় সে নির্দোষ।

মিশরের জুদেন, নেগেভ ও সিনাই গোত্রে প্রচলিত এই বিচার প্রক্রিয়ার নাম ‘বিশা’।

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল প্রকাশ করা হবে না