সাম্প্রতিক

‘মেসির পায়ে গতি ছিল না, ছিলেন মনমরা’

প্রথম খেলায় দুর্বল আইসল্যান্ডের বিরুদ্ধে পেনাল্টি মিস করেন লিওনেল মেসি। ফলে ড্রতে সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে আর্জেন্টিনাকে।

এরপর বৃহস্পতিবার রাতে দ্বিতীয় খেলায় ক্রোয়েশিয়ার সঙ্গে বাজেভাবে হার। দেশটির ফুটবলের সমর্থকদের কাছে যা মেনে নেয়া অসম্ভব। কাজেই এ নিয়ে আর্জেন্টিনার গণমাধ্যমের প্রতিক্রিয়াও ইতিবাচক না।

দেশটির স্থানীয় টেলিভিশন ধারাভাষ্যকার ডিয়েগো লাতোররি সমালোচনায় মেসিকে তুলোধুনো করে ছাড়লেন।

তিনি বলেন, মেসি বৈদ্যুতিক খাম্বার মতো স্থির হয়ে ছিলেন। তার পায়ে গতি ছিল না। পুরো ম্যাচে মেসি মনমরা হয়ে ছিলেন।

দেশটির সংবাদ মাধ্যম মেসি ও তার সতীর্থদের সমবেদনা কিংবা সান্ত্বনা দেয়ার ধারে কাছে যাচ্ছে না। বরং নিজেদের ফুটবল দলকে রীতিমতো ধুয়ে দিচ্ছে।

আর্জেন্টাইন গণমাধ্যম বলছে, এটি এমন একটা ফল, প্রিয় মানুষের লাশের মতো যার ভার সহ্য করা যায় না।

ক্লারিন নামের একটি পত্রিকা লিখেছে, ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে আর্জেন্টিনা বিপর্যয়ের শিকার হয়েছে।

তাদের ভাষ্য, আর্জেন্টিনা হতাশ করেছে এবং বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে পড়ার পথে।

লা নেসিওন নামের একটি পত্রিকা লিখেছে, আর্জেন্টিনা নাকি ক্রোয়েশিয়ার উপহাসের শিকার হয়েছে! এই হারে আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপে টিকে থাকা হুমকির মুখে পড়েছে।

ক্রোয়েশিয়ার কাছে এই পরাজয়কে অপমানজনক হিসেবে উল্লেখ করেছে দ্য ইনফোবায়ি নামের আর্জেন্টাইন এক অনলাইন।

মেসিদের নিয়ে টিপ্পনি কাটতে ছাড়েননি ১৯৮৬ সালের বিশ্বকাপ জয়ী আর্জেন্টিনা দলের ডিফেন্ডার অস্কার রুজ্জেরিও।

আর্জেন্টাইন গোলরক্ষক উইলি কাবায়েরোকে নিয়ে তিনি বলেছেন, কাবায়েরোকে দলে নেয়া হয়েছে, কারণ সে পা দিয়ে ভালো খেলতে পারে।

error: Content is protected !!