সাম্প্রতিক

আবারো হরিণাকুন্ডুতে প্রবাসির স্ত্রীর ঘরে ঢুকে পুলিশের হাতে ধরা মনিরুল

ঝিনাইদহে জেলায় প্রবাসির স্ত্রীরা হরহামেশা পরোকিয়ায় জড়াচ্ছে বিপাকে পড়ছে পরিবার পরিজন, সামাজিক অস্থিরতা বৃদ্ধি পাচ্ছে!
ঝিনাইদহ সংবাদাতাঃঝিনাইদহের পর এবার প্রবাসির স্ত্রীর ঘরে ঢুকে পুলিশের হাতে ধরা পড়লো হরিণাকুন্ডুর মনিরুল ইসলাম (৪০) নামে এক ব্যক্তি। তিনি হরিণাকুন্ডু উপজেলার শিংগা গ্রামের নুর মোহাম্মদের ছেলে। গতকাল রাতে শিংগা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। গ্রামবাসি জানায় শিংগা গ্রামের ওমান প্রবাসি আরিফুলের স্ত্রী স্মৃতির সাথে পরোকিয়া গড়ে তোলে মনিরুল। এ কারণে প্রায়ই স্মৃতির ঘরে যেত মনিরুল। রাতে স্মৃতি মনিরুলের অনৈতিক কাজের বিষয়টি জানতে পেরে ফাঁদ তৈরী করে গ্রামবাসি। মনিরুল স্মৃতির ঘরে প্রবেশ করা মাত্রই পুলিশকে খবর দেয় গ্রামবাসি। স্মৃতির ঘরে কড়া নাড়তেই জানালা ভেঙ্গে পালানোর চেষ্টা করে মনিরুল। হাতে নাতে আপত্তিকর অবস্থায় স্থানীয়রা মনিরুলকে ঘরের ভিতর আটকে রেখে পুলিশকে খবর দেই। পুলিশ এসময় দুজনকে ধরে থানায় নিয়ে যায়। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনা নিয়ে কথা হলে বুধবার বিকালে হরিণাকুন্ডু থানার এসআই নিপুন বোষ জানান, দন্ডবিধি ২৯০ ধারায় মনিরুল ও স্মৃতিকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। উল্লেখ্য, একই রকম ঘটনায় গত পরশু মঙ্গলবার ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বোড়াই গ্রামে প্রবাসি জালু মিয়ার স্ত্রী চুমকির ঘরে ঢুকে ধরা পড়ে হরিণাকুন্ডুর হিঙ্গেরপাড়া গ্রামের জামাত আলীর ছেলে নায়েব আলী। এ সময় নায়েবকে কুপিয়ে হাসপাতালে পাঠানো হয়। ঝিনাইদহে জেলায় প্রবাসির স্ত্রীদের নিয়ে বিপাকে পড়েছে তার পরিবার পরিজন। বিয়ে করে স্বামী বিদেশে থাকায় তারা হরহামেশা পরোকিয়ায় জড়িয়ে পড়ছে। এতে বিভিন্ন গ্রামে সামাজিক অস্থিরতা দেখা দিচ্ছে।

error: Content is protected !!